শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৮রেজি:/স্মারক - ০৫.৪২.৫১০০.০১৪.৫৫.০৩৭.১২-৫৬২
Menu

দেশকে একটি মধ্য আয়ের দেশে পরিণত করতে সরকারি-বেসরকারি সংগঠনকে সরকারের সাথে কাজ করতে বললেন রাষ্ট্রপতি

দেশকে একটি মধ্য আয়ের দেশে পরিণত করতে সরকারি-বেসরকারি সংগঠনকে সরকারের সাথে কাজ করতে বললেন রাষ্ট্রপতি


ঢাকা অফিস : রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ‘রূপকল্প- ২০২১’ অনুসারে বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে আজ বেসরকারি ও সেবাধর্মী সংগঠনসহ প্রত্যেককে সরকারের সাথে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন।
রোটারি ইন্টারন্যাশনাল জেলা-৩২৮১ এর এক অনুষ্ঠানে আজ রাষ্ট্রপতি বলেন, “২০২১ সালে দেশ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন করবে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সময়ের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে মর্যাদা পেতে ‘রূপকল্প- ২০২১’ ঘোষণা করেছেন। এই লক্ষ্য অর্জনে সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন।” আবদুল হামিদ বলেন, ‘আমার বিশ্বাস, যদি আমরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে দেশ গঠনে যথার্থ ভূমিকা পালন করি তাহলে আমরা নিজেদেরকে বিশ্বে একটি সমৃদ্ধ জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হবো।’অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে রোটারি ইন্টারন্যাশনালের জেলা গভর্নর সাফিনা রহমান, রোটারিয়ান রফিক আহমেদ সিদ্দিকী এবং ইব্রাহিম খলিল আল জায়েদ পিনাক বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে আর্ত মানবতার সেবায় অবদান রাখার জন্য পাঁচজন পুরুষ ও তিনজন রোটারিয়ানকে সম্মাননা জানায় রোটারি ইন্টারন্যাশনাল
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ রোটারির কাজের প্রশংসা করেন এবং বলেন ১৯৩৭ সালে শুরু হওয়া রোটারি আন্দোলন বর্তমানে দেশের সর্বত্র বিস্তার লাভ করেছে।
২২৫ টি রোটারি ক্লাবের আটহাজার সদস্য দেশে উপকূলীয় এলাকায় ঘূর্নিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ, ঢাকায় ক্যান্সার নির্ণয় ইউনিট, কুমিল্লায় মৎস্য উন্নয়ন কেন্দ্র এবং ময়মনসিংহে পোল্ট্রি উন্নয়ন প্রকল্পসহ বিভিন্ন মানবিক কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।রাষ্ট্রপতি বলেন, পাশাপাশি রোটারি ক্লাবসমূহ চক্ষু ক্যাম্প, বৃক্ষ রোপণ, আর্সেনিকমুক্ত পানি সরবরাহ, স্বাস্থ্য সেবাদান, গ্রামীণ এলাকায় কৃষি উন্নয়ন কার্যক্রমসহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে জড়িত। রোটারি ইন্টারন্যাশনালের সদস্যদেরকে তাদের সমাজকল্যাণমূলক কর্মকান্ডের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, রোটারিয়ানরা আগামি দিনগুলোতেও জনগণের কল্যাণের তাদের উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যহত রাখবেন, বিশেষত, অনগ্রসর জনগোষ্ঠির জন্য।

আর্কাইভ