শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৮রেজি:/স্মারক - ০৫.৪২.৫১০০.০১৪.৫৫.০৩৭.১২-৫৬২
Menu

বিএনপির নির্যাতনের কথা দেশের মানুষ ভুলতে পারবে না : হানিফ

বিএনপির নির্যাতনের কথা দেশের মানুষ ভুলতে পারবে না : হানিফ

ঢাকা অফিস : আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীদের উপর যে নির্যাতন-নিপিড়ন চালিয়েছিল দেশের মানুষ তা কখনো ভুলতে পারবে না। আজ শনিবার কুষ্টিয়া মোহিনী মিল মাঠে কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন’র আয়োজনে ২০১৩ সালের বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের বৃত্তি ও সনদপত্র প্রদান অনুষ্ঠানে যোগ দেবার পূর্বে হানিফ সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন। কুষ্টিয়া কিন্ডার গার্টেন এ্যাসোসিয়েশন কুষ্টিয়া শাখার সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন দুলালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, সহ-সভাপতি রবিউল ইসলাম, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি তাইজাল আলী খাঁন প্রমুখ। ‘বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের হত্যা নির্যাতনের মাধ্যমে সরকার দেশে অরাজকতা ও ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করেছে’ বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসিচব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্য জবাবে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, মানুষের উপর নির্যাতন হয়েছে বিএনপি সরকারের আমলে। ২০০১ থেকে ২০০৬ সালের তাকিয়ে দেখলেই বোঝা যায়। নির্যাতনের এক ইতিহাস রচনা করেছিল তারা। আগামী ৫০ বছরেও এর দাগ মুছবে না। তিনি বলেন, নিজেদের এসব অপকর্ম ঢাকতে বিএনপি নেতারা এখন মিথ্যাচার করছেন। আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে কোন ফায়দা হবে না। কারণ, জনগণ বিএনপির চরিত্র সম্পর্কে জানে। তারা জঙ্গীবাদের উত্থান করেছিল, এটা প্রমাণিত। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বলেন, বিএনপি গত তিন বছর ধরে সরকার পতনের আন্দোলন করছে। এ বিষয় নিয়ে মন্তব্য করার ইচ্ছে নেই। কেননা বিএনপি নেতারা যে জঙ্গিবাদের মদদ দাতা এবং তার উত্থান ঘটিয়েছিল তা আদালতে প্রমাণিত হয়েছে।
আলোচনা সভা শেষে মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে সার্টিফিকেট ও বৃত্তির চেক তুলে দেন মাহবুব উল আলম হানিফ।

আর্কাইভ