বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮রেজি:/স্মারক - ০৫.৪২.৫১০০.০১৪.৫৫.০৩৭.১২-৫৬২
Menu

শেখহাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাই --তৃণমূলে ফরিদুন্নাহার লাইলী

শেখহাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাই --তৃণমূলে ফরিদুন্নাহার লাইলী

রাসেল পাটওয়ারী, রামগতি(লক্ষ্মীপুর)প্রতিনিধি: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী লক্ষ্মীপুরের রামগতি ও কমলনগর উপজেলার তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করেছেন। এসময় তিনি দলের নিবেদিত তৃণমূল নেতাকর্মীদের মাঝে অনেক নেতা কর্মীর পাওয়া না পাওয়ার বেদনা থাকা স্বত্বেও সকল দুঃখ ভেদাভেদ ভূলে এক সাথে কাজ করে বাংলার মাটিতে আবারো জননেত্রী শেখহাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে জাতীয় সংসদে পাঁঠানোর জন্য অনুরোধ জানান।

শুক্রবার দুপুরে রামগতি উপজেলার বড়খেরী ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তন ও কমলনগর উপজেলার হাজিরহাট ইউনিয়ন দলীয় কার্যালয় এবং চরলরেঞ্চ আওয়ামী লীগ নেত্রী রেবেকা মহসিনের বাসায় এ মতবিনিময় করেন।

এর আগে ফরিদুন্নাহার লাইলী কমলনগর উপজেলায় চরফলকন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মরহুম আবদুল মোতালেব মেম্বার এর কবর জেয়ারত করেন। এবং মরহুমের বিদ্রেহী আত্মার শান্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাত করেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী তাঁর বক্তব্যে বলেন, ব্যাপক উন্নয়ন, সাফল্য ও অগ্রগতির ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে এদেশের মানুষ নিজেদের প্রয়োজনে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায়। তবে সেটা আপনাদের মূল্যবান ভোট প্রয়োগের মাধ্যমে অর্থ্যাৎ আওয়ামী লীগের প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে তা প্রমান করে দিতে হবে। তবেই আওয়ামী লীগ সরকারের রোড়ম্যাপ বাস্তবায়ন হবে।

লাইলী বলেন, বাংলাদেশের মানুষ বলেন শেখহাসিনা যদি প্রাধানমন্ত্রী থাকে তখন বাংলাদেশের উন্নয়ন হয়, কৃষক ভালো থাকে, শ্রমিক ভালো থাকে, ৩ কোটি ছাত্র জানুয়ারীর ১তারিখে বই পায়, ১০টাকা দরে বাংলার মানুষ চাল পায়, বিদ্যুৎ যায়না গ্রামে গ্রামে বাড়িতে বাড়িতে বিদ্যুতের সংযোগ হয়, সারের দাম বাড়েনা, তেলের দাম বাড়েনা, শান্তিতে থাকে বাংলার মানুষ, রাস্তা ঘাট হয়, মসজিদের উন্নয়ন হয়, পদ্মাসেতু হয়, হাতিরঝিল হয়, ক্রিকেটেও বাংলার ছেলেরা পাকিস্তানকে হারিয়ে হোয়াটওয়াস করে হারিয়ে দেয়, ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের ছেলেরা বিশ্ব চেম্পিয়ান হওয়ার স্বপ্ন দেখে।

তিনি আরো বলেন, সারা বাংলায় টেকনাফ থেকে তেতুলিয়া রূপসা থেকে পাথরিয়া একই আওয়াজ উঠেছে শেখহাসিনার সরকার বারবার দরকার। নারীদের জন্য শেখহাসিনা সরকার উন্নয়নের মাইল ফলক। নারীদের কল্যাণে তিনি বিধবাভাতা প্রচলন করেছেন। সেনাবাহিনী, নৌ-বাহিনী, বিমানবাহিনীতে নারীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিয়েছে।
এছাড়াও তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যানে মুক্তিযোদ্ধাভাতা, বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা, গ্রামে গ্রামে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের মাধ্যমে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়া প্রত্যয়ে শেখহাসিনা উন্নয়নের মাইলফলক স্থাপন করেন।

আজকের বাংলাদেশের রাজনীতিতে ঐ খালেদা জিয়ারা আবার ক্ষমতায় আসায় পায়তারা করছে। পেট্রোল বোম মারিয়ে হাজারো মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করিয়েছেন, বাস পুড়িয়েছেন, গাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছিলেন, মায়ের কোল থেকে মেয়েকে হত্যা করেছেন। আর তিনি আগুনের সন্ত্রাসী নামে বেগম খালেদা জিয়া বাংলাদেশের মানুষের কাছে পরিণত হয়েছেন।

কমলনগর উপজেলায় মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি একেএম নুরুল আমিন মাস্টার, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রেবেকা মহসিন, হাজিরহাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা আক্তার হোসেন মিলন, জেলা যুবলীগ নেতা পৌর কাউন্সিলর আহসানুল করিম শিপন, উপজেলা যুবলীগ সহ সভাপতি আবদুল বাসেত, সাংগঠনিক সম্পাদক ওমর ফারুক সাগর, জেলা ছাত্রলীগ সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আহাদ নিজাম, কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বিপ্লব, সহ সভাপতি হেলাল উদ্দিন হিমেল, আশরাফ আহমেদ রাজন, সাধারণ সম্পাদক মির্জা আশরাফুজ্জামান রাসেলসহ প্রমূখ।
এরআগে সকাল থেকে রামগতি উপজেলার চরআলগী, পোড়াগাছা, আজাদনগর, চররমিজ, রামদয়াল, আলেকজান্ডার, জমিদারহাট ও করুনানগর এলাকায় তৃনমুলের নেতকর্মীদের সাথে দেখা এবং মতবিনিময় করেন।

এসময় চরগাজী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মাহফুজুল হক শেরে আলী, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও বড়খেরী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হাসান মাহমুদ ফেরদাউস, আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক রামগতি পৌরসভার মেয়র আজাদ উদ্দিন চৌধুরী, চর আলগী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সাহেদ আলী মনু, চররমিজ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি ডাক্তার ফরিদ উদ্দিন, চররমিজ ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি মো. রায়হান, রামগতি উপজেলা প্রজন্ম লীগ সভাপতি যোবায়ের হোসেন, রামগতি পৌরছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক সাদ্দম হোসেন, চরআলগী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সা: সম্পাদক মো. মিলন জমিদারসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক সাবেক সংরক্ষিত সাংসদ (রামগতি-কমলনগন) ফরিদুন্নাহার লাইলীর সফর সঙ্গী ছিলেন বঙ্গবন্ধু যুব আইনজীবী পরিষদের সাবেক যুগ্ন আহ্বায়ক  ড. বদরুল হোসেন কচি ও রামগতি উপজেলা যুবলীগের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি সাইফুল আলম বিপ্লবসহ প্রমূখ।

আর্কাইভ