বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮রেজি:/স্মারক - ০৫.৪২.৫১০০.০১৪.৫৫.০৩৭.১২-৫৬২
Menu

কমলনগরে নিবন্ধিত জেলের জন্য ভিজিএফ বরাদ্দের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

কমলনগরে নিবন্ধিত জেলের জন্য ভিজিএফ বরাদ্দের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে ইলিশ উৎপাদন বৃদ্ধিতে জাটকা নিধন থেকে বিরত থাকা সকল নিবন্ধিত জেলেদের ভিজিএফ (চাল) বরাদ্দের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে কমলনগর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও চরলরেঞ্চ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান একেএম নুরুল আমিন মাস্টার।

রোববার (১৪মে) দুপুরে উপজেলার মুজিবনগরস্থ চরলরেঞ্চ ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে একেএম নুরুল আমিন মাস্টার বলেন, কমলনগর উপজেলায় নিবন্ধিত জেলে ১৩ হাজার ৩৯৮ জন। এদের মধ্যে ভিজিএফের বরাদ্দ পেয়েছে ৭ হাজার ১৪২জন জেলের জন্য সরকার ভিজিএফের চাল বরাদ্দ দেয়। বাকী ৬ হাজার ২৫৬ জন জেলে ভিজিএফের চাল পাওয়া থেকে বঞ্চিত রয়েছে। চরলরেঞ্চ ইউনিয়নের ৭০৮জন নিবন্ধিত জেলের মধ্যে ৩২৩জন ভিজিএফের চাল পাচ্ছেন বাকী জেলেরা চাল থেকে বঞ্চিত হওয়ায় তাদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছে। বিভিন্ন ইউনিয়নে বঞ্চিত জেলেরা চালের দাবীতে বিক্ষোভ করে। যে কারণে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের বিভ্রান্তকর পরিস্থিতিতে পরতে হয়। তাই নিবন্ধিত সকল জেলেকে ভিজিএফ সহায়তার আওতায় আনার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চরলরেঞ্চ ইউনিয়র পরিষদের সদস্য ফখরুল ইসলাম দুলাল, আবদুল আলী, সাইফুল ইসলাম, নাছির উদ্দিন, কমলনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বিপ্লব, সহ-সভাপতি হেলাল উদ্দিন হিমেল ও সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জামান রাসেল প্রমুখ।

এব্যাপারে জানতে চাইলে কমলনগর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আবদুল কুদ্দুছ জানান, কমলনগর উপজেলায় ১৩ হাজার ৩৯৮ জন নিবন্ধিত ছেলে থাকলেও ৭ হাজার ১৪২জন জেলের জন্য ভিজিএফ এর চাল বরাদ্দ হয়েছে। বঞ্চিত জেলেরা যাতে আগামীতে এ সহায়তা পায় সে জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, মার্চ এপ্রিল ২মাস চাঁদপুরের ষাটনল থেকে লক্ষ্মীপুরের রামগতি পর্যন্ত ১০০ কিলোমিটার মেঘনা নদীতে সকল প্রজাতির নিষিদ্ধ ছিল। নিষিদ্ধ সময়ে মাছ ধরা থেকে বিরত থাকায় জেলেদের জন্য ৪০ কেজি করে ৪ কিস্তি ভিজিএফের চাল সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।

আর্কাইভ