মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৮রেজি:/স্মারক - ০৫.৪২.৫১০০.০১৪.৫৫.০৩৭.১২-৫৬২
Menu

কমলনগরে জেলা তৃণমূল লীগ সভাপতি’র মুক্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল

কমলনগরে জেলা তৃণমূল লীগ সভাপতি’র মুক্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল

কমলনগর(লক্ষ্মীপুর)প্রতিনিধি: লক্ষীপুর জেলা আওয়ামী লীগের প্রাণপুরুষ, লক্ষ্মীপুর পৌর মেয়র এমএ তাহেরের জৈষ্ঠ্য পুত্র আফতাব উদ্দিন বিপ্লবের মুক্তির দাবীতে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার(১৭ফেব্রুয়ারী)সন্ধ্যায় উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়নের প্রাণ কেন্দ্র ফজুমিয়ার হাট বাজারে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
বিক্ষোভ মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন কমলনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ- সভাপতি সফিক উল্যা বাংলা নেতা, উপজেলা কৃষক লীগ আহবায়ক ডাক্তার হারুন-অর-রশিদ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি মনির আহম্মদ মাঝি, তৃণমূল লীগ নেতা মিজানুর রহমান সোহেল বাঙ্গালীসহ প্রমূখ।

কমলনগরে মাদক সেবীদের জরিমানা

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মাদকদ্রব্য সেবনের দায়ে দুইজনকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
শুক্রবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে এ রায় দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা।
অর্থদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন চর ফলকন গ্রামের উত্তল চন্দ্রের ছেলে রনি চন্দ্র দাস (২৭) ও চর জাঙ্গালিয়া গ্রামের সঞ্চয় সীল। এদের প্রত্যেককে ২ হাজার টাকা করে ৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে মাদকদ্রব্য সেবন ও সরঞ্জাম পাওয়া হাজিরহাট বাজারের তালপট্রি এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করে কমলনগর থানা পুলিশ। পরে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করলে এ রায় দেন। উপজেলা প্রশাসন তা নিশ্চিত করেন।

কমলনগরে জব্দকৃত জাল ধবংস

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে জব্দকৃত চরঘেরা (মশারী জাল) ধবংস করা হয়েছে।
শুক্রবার (১৭ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে উপজেলার কটরিয়া মাছ ঘাটে এ জালগুলো ধবংস করা হয়। এর আগে সকালে কোস্টগার্ড ও উপজেলা মৎস্য অফিস অভিযান চালিয়ে মেঘনা নদীর জারিরদোনা পয়েন্ট এলাকা থেকে ২টি চরঘেরা জাল আটক করে।
উপজেলা মৎস্য অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) আবদুল কুদ্দুছ জানান, মেঘনা নদীতে অভিযান চালিয়ে ২টি চরঘেরা জাল আটক করা হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লার উপস্থিতিতে জালগুলো ধবংস করা হয়। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন মৎস্য কর্মকর্তা, কোস্টগার্ড, চেয়ারম্যান আবুল খায়ের ও হারুনুর রশিদ।




আর্কাইভ