বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮রেজি:/স্মারক - ০৫.৪২.৫১০০.০১৪.৫৫.০৩৭.১২-৫৬২
Menu

চাটখিলে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

চাটখিলে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

বুধবার, ১৩ জানুয়ারী ২০১৫
চাটখিল(নোয়াখালী)প্রতিনিধি: নোয়াখালীর চাটখিল পৌরসভার ফতেপুর গ্রামে যৌতুকের দাবিতে এক সন্তানের জননী জান্নাতুল ফেরদাউস স্মৃতি (২৫) নামের এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর হাসপাতালে নিহতের মৃতদেহ রেখে স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ীর লোকজন পলাতক রয়েছে।
শুক্রবার সকালে নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিহতের মৃতদেহ রেখে যায় তারা। নিহত জান্নাতুল ফেরদাউস স্মৃতি চাটখিল উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের ধন্যপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে। তার একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।
নিহতের পরিবারের লোকজন অভিযোগ করে বলেন, গত ৩ বছর আগে চাটখিল পৌরসভার ফতেপুর গ্রামের রহমত উল্ল্যার ছেলে আব্দুল্যাহ আল মমিনের সাথে বিয়ে হয় স্মৃতির। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে বিভিন্ন সময় স্মৃতিকে মারধর করত তার স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ীর লোকজন।
এর সূত্রধরে গত কয়েকদিন আগে স্মৃতির পরিবারের কাছে ৫লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে মমিনের পরিবার। কিন্তু তাদের দাবিকৃত টাকা দিতে না পারায় বৃহস্পতিবার রাতে স্মৃতির ওপর শারীরিক নির্যাতন চালায় মমিন ও তার পরিবারের লোকজন। এর একপর্যায়ে স্মৃতি অচেতন হয়ে পড়লে ঘটনাকে আত্মহত্যা বলে চালানোর জন্য স্মৃতির মুখে বিষ ডেলে দেয় তারা।
জানা গেছে, রাত ১টার দিকে স্মৃতির শ্বশুর বাড়ীর লোকজন অচেতন অবস্থায় তাকে প্রথমে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে স্মৃতি মারা গেছে জেনে সকালে তার মৃতদেহ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় তারা।
চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাছিম উদ্দিন সাম্প্রতিক স্বদেশকে জানান, এক গৃহবধূকে বিষপ্রাণ অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা গেছে বলে শুনেছি। তবে এ বিষয়ে কেউ এখনো পর্যন্ত (বিকেল ৪টা) থানায় কোন অভিযোগ করেনি।

আর্কাইভ